স্টার্ফ রিপোর্টার: আজ মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর ধানমণ্ডির হোয়াইট হল কনভেনশন সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, যারা ভাস্কর্য ইস্যু নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন তারা ভুল করছেন। সংস্কৃতিমনা বাঙালি কখনো ভাস্কর্য ভাঙচুর করতে পারে না, এটি চিহ্নিত ষড়যন্ত্রকারীদেরই অপপ্রয়াস।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যারা ভাস্কর্য ইস্যু নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন তারা ভুল করছেন। ভাস্কর্য কেন এটা আমাদের বুঝতে হবে। অনেক মুসলিম নেতাদের ভাস্কর্যও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে রয়েছে। প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম যেন ইতিহাস চিনতে পারে, হৃদয়ে ধারণ করতে পারে- এজন্য ভাস্কর্য স্থাপন করা হয়। আমি মনে করি, এটা নিয়ে শিগাগিরই ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। ভাস্কর্য পুজার জিনিস নয়, এটি স্মৃতি ধরে রাখার জিনিস, হৃদয়ে ধারণ করার বিষয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ভাস্কর্য রক্ষার দায়িত্ব আমাদের সবার। কোথাও এমন ঘটনা ঘটলে কেউ নিজের হাতে আইন তুলে নিবেন না। যারা করছেন তাদের চিহ্নিত করে আইনের হাতে তুলে দেবেন। এ দেশের সংস্কৃতিমনা বাঙালিরা ভাস্কর্য ভাংচুর করতে পারে না, এসব চিহ্নিত ষড়যন্ত্রকারীদেরর অপপ্রয়াস। তিনি বলেন, ‘যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুর করেছে তাদেরকে চিহ্নিত করে গ্রেফতার করা হয়েছে। কুষ্টিয়ায় শুধু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নয় যারা বাঘা যতিনের ভাস্কর্য ভাংচুর করেছে তাদেরকেও চিহ্নিত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সভায় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচিসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।