Categories
মহানগর

দেশের শিশুরা পাচারের ঝুঁকিতে: জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা বাস্তবায়নের আহবান সিভিল সোসাইটির

নিজস্ব প্রতিনিধি: শিশুরা মানব পাচারের জন্য বেশী ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে সিভিল সোসাইটির সদস্যবৃন্দ মানব পাচার মোকাবেলায় প্রণীত জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা (এনপিএ) ২০১৮-২২ কে পুরোপুরি বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ওয়াইডব্লিওসিএ এ মিলনায়তনে মানব পাচার প্রতিরোধ তহবিল তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের সাথে এক শেয়ারিং মিটিংয়ে একথা বলেন।

প্রিভেনশন অব চাইল্ড ট্রাফিকিং থ্রু স্ট্রেনদিনিং কমিউনিটি অ্যান্ড নেটওয়ার্কিং (পিসিটিএসসিএন) কন্সোর্টিয়াম এর অন্যতম সদস্য কমিউনিটি পার্টিসিপেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (সিপিডি) পিসিটিএসসিএন এর পক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়াজন করে।

বক্তারা বলেন, প্রধানত প্রান্তিক পরিবারের শিশুরা (ছেলে ও মেয়ে উভয়ই) যৌন শোষণ, ভিক্ষা, মৎস্য খাতে কাজ করা এবং ইটের ভাটার মতো দাসত্বের অন্যান্য কাজে দেশের অভ্যন্তরে এবং বাইরে উভয় স্থানেই পাচার এর শিকার হয়ে থাকে।

তারা বলেন, সরকার এনপিএ প্রণয়ন করেছে যেখানে পাচার বিরোধী বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা যেমন তহবিল গঠন করার কথা উল্ল্খে করা হয়েছে।

এনপিএ বাস্তবায়নের জন্য পর্যাপ্ত আর্থিক বরাদ্দ, এইখাতে কর্মরত সংশ্লিষ্টদের মধ্যে সমন্বয়সাধন নিশ্চিতকরণ এবং এনপিএ বাস্তবায়নে শিশুদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা, প্রতিষ্ঠানগুলিকে (জাতীয় কর্তৃপক্ষ, তহবিল ও বিশেষ ট্রাইব্যুনাল) শক্তিশালীকরণে শিশুদের অগ্রাধিকার নিশ্চিতকরণ এর জন্য তারা দাবী তুলে ধরেন।

আইন ও বিচার বিভাগের যুগ্ম-সচিব এএইচএম হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। ইনসিডিন বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক একেএম মাসুদ আলী সভাপতিত্ব করেন।

সিপিডি’র নির্বাহী পরিচালক মোসলেমা বারী, সিনিয়র সহকারী জাজ ও ঢাকা জেলার আইনী সহায়তা কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন বাংলাদেশ এর উপ-পরিচালক রবিউল ইসলাম, যুব উন্নয়র অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিরাজ সরকার, অন্যান্যদের মধ্যে, অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

পিসিটিএসসিএন সচিবালয়ের সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট মো. রফিকুল ইসলাম খান আলম মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।