পাকিস্তানের দুর্বল আর্থিক অবস্থার কারণে দেশটির মেইন লাইন -১ (এমএল -১) রেলপথ প্রকল্পের জন্য ৬ বিলিয়ন ডলারের ঋণ অনুমোদনের আগে অতিরিক্ত গ্যারান্টি চেয়েছে চীন। বুধবার চীন ওই রেল প্রকল্পের তহবিলের জন্য বাণিজ্যিক ও ছাড়যোগ্য যৌথ ঋণের প্রস্তাব করেছে। অন্যদিকে পাকিস্তান সস্তা সুদের হারে লোন আশা করছিল।

যেহেতু পাকিস্তানের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি মজবুত না, তাই শুধুমাত্র পাকা গ্যারান্টির ভিত্তিতেই চীন লোন দেবে বলে জানিয়েছে। পাকিস্তানের দাবি, মেন লাইন-১ প্রোজেক্টের ফিনান্সিং মিটিং-এ চীন এই গ্যারান্টি চায়, তবে শুরুতে পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠকের চূড়ান্ত ব্রিফিংয়ে এটি উল্লেখ করা হয়নি।
এমএল -১ প্রোজেক্টে পেশোয়ার থেকে করাচি পর্যন্ত রেলপথ আপগ্রেড করা হবে। এই প্রকল্পের জন্যই পাকিস্তান চীনের কাছ থেকে লোন চেয়েছিল। কিন্তু চীন সুদের হার চড়া চাওয়ার পাশাপাশি পাকা গ্যারান্টিও চেয়েছে।
এক পাকিস্তানি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বৈঠকে লোনের জন্য গ্যারান্টি চাওয়া হলে বৈঠকে উপস্থিত পাকিস্তানি কর্মকর্তারা রীতিমতো অবাক হয়ে যান। তবে চীনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, পাকিস্তানের যা অর্থনৈতিক অবস্থা তাতে লোনের জন্য পাকিস্তানের গ্যারান্টি দেওয়া উচিৎ।

পাকিস্তানের আশা ছিল চীন ১ শতাংশ সুদের হারে লোন দেবে ও লোন শোধের জন্য ১০ বছরের সময় দেবে। কিন্তু চীন পাকিস্তানের এই আশায় একেবারে পানি ঢেলে দেয়। পাকিস্তান চীনের কাছে এই প্রকল্পের ৯০ শতাংশ লোন চেয়েছিল। কিন্তু চীন জানিয়েছে, তারা ৮৫ শতাংশ অর্থ দিতে পারবে।

সূত্র : ইকনোমিক টাইমস্।