স্টাফ রিপোর্টার: মারণব্যাধী করোনাভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকে পিক আওয়ার অর্থাৎ করোনা আক্রান্তের মুল সময় বা আতংঙ্কের মধ্যেও যখন লকডাউন চলছিল তখনও দেশে আজকের মতো এতো বেশী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি। যা ইতিহাসক বদলে দিয়ে নুতন রেকট সৃষ্টি করলো এই মহামারী।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজার ৩৫৮ জন।এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬ লাখ ১১ হাজার ২৯৫ জনে।
আর ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরো ৫২ জন। যা গত সাত মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৯ হাজার ৪৬ জনে।

বুধবার (৩১ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের ২২৪টি সরকারি ও বেসরকারি ল্যাবরেটরিতে ২৬ হাজার ৬৭১টি নমুনা সংগ্রহ ও ২৬ হাজার ৯৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার ১৯. ৯০ শতাংশ। এদিন সুস্থ হয়েছেন আরো ২ হাজার ২১৯ জন।২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৮.৭৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৪২ হাজার ৩৯৯ জন।
গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৩.০৯ শতাংশ।
আজকের মৃত ৫২ জনের মধ্যে ২০ শোর্ধ্ব ১ জন, ৩০ শোর্ধ্ব ৫ জন, ৪০ শোর্ধ্ব ৮ জন, ৫০ শোর্ধ্ব ৮ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ৩০ জন।

আজকের মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৩৪ জন, চট্টগ্রামে ৯ জন, রাজশাহীতে ৩ জন, খুলনায় ৩ জন, সিলেটে ২ জন ও রংপুর বিভাগে ১ জন রয়েছে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) দেশে আরো ৫ হাজার ৪২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এ ছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আরো ৪৫ জন।