দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও নতুন ১১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটিই বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৭৫ জন ও নারী ৩৭ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৪৯৭ জন।

আর আজ নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ২১৭ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭ লাখ ২৩ হাজার ২২১ জন।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মোট মৃত্যুবরণকারী ১১২ জনের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০৮ জন, বাসায় তিনজন ও হাসপাতালে আনার পথে একজনের মৃত্যু হয়। এদের মধ্যে ৩০ শোর্ধ্ব ১০ জন, ৪০ শোর্ধ্ব ১২ জন, ৫০ শোর্ধ্ব ২৬ জন এবং ষাটোর্ধ ৬৪ জন রয়েছেন।

আজকের মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৭১ জন, চট্টগ্রাম ১৯ জন, রাজশাহী পাঁচজন, খুলনা ১০ জন, বরিশাল ১জন, সিলেট ৩ জন, রংপুর ২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১ জন রয়েছে।
অপরদিকে গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬ হাজার ৩৬৪ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠা রোগীর সংখ্যা ৬ লাখ ২১ হাজার ৩০০ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৫ .৯১ শতাংশ।

দেশের সরকারি-বেসরকারি ২৬০টি ল্যাবরেটরিতে ২৪ হাজার ২১২টি নমুনা সংগ্রহ ও ২৪ হাজার ১৫২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৭.৬৮ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৩.৯২ শতাংশ।