ডেস্ক রিপোর্ট: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতার ঠিক শেষ প্রান্তে এসে গতকাল মঙ্গলবার চীনের বেশ কয়েকটি অ্যাপ নিষিদ্ধ করে এ সংক্রান্ত এক নির্বাহী আদেশে সই করেছেন।

দেশটির গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, ট্রাম্পের সই করা আদেশে বলা হয়েছে, চীনের সংশ্লিষ্ট অ্যাপগুলো যারা নিয়ন্ত্রণ ও এর প্রসার ঘটাবে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার জন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

নির্বাহী আদেশে যেসব অ্যাপ নিষিদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে সেগুলো হলো- আলিপে, উইচ্যাট পে, শেয়ারইট, টেনসেন্ট কিউকিউ, ভিমেট, ডব্লিউপিএস, ক্যামস্ক্যানার, কিউকিউ ওয়ালেটের মতো বহুল ব্যবহৃত অ্যাপগুলো।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট যুক্তরাষ্ট্রে চীনা অ্যাপগুলোর ব্যবহার নিষিদ্ধের পর বলেছেন, অ্যাপগুলো ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে। চীন সরকার এগুলোর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কর্মচারী ও কনট্রাক্টরদের অবস্থান এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়ে পারে বলে শঙ্কা তার।

chinese app ali payচীনা অ্যাপ আলিপে

খবরে বলা হয়েছে, আগামী দেড় মাসের মধ্যে ট্রাম্পের সই করা এই আদেশ যুক্তরাষ্ট্রে কার্যকর হবে। কিন্তু তার আগেই ক্ষমতা ছেড়ে যাবেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান অনুযায়ী, আগামী ২০ জানুয়ারি নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ নেবেন জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তারা বলছেন, চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধের মতো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও বিষয়টি নিয়ে জো বাইডেনের সঙ্গে কোনো আলোচনা করা হয়নি।

উল্লেখ্য, এর আগেও ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা কোম্পানি বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক নিষিদ্ধ করার আদেশ দেন। কিন্তু তার সেই আদেশ খারিজ করে দেয় উচ্চ আদালত। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অতিরিক্ত আইনি ক্ষমতা ব্যবহার করছেন বলেও উল্লেখ করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রে সম্প্রতি এই অ্যাপগুলোর ডাউনলোড ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে। মার্কিন প্রশাসন ধারণা করছে, প্রায় ১ কোটি মানুষ এই অ্যাপ ব্যবহার করার মাধ্যমে নিজেদের ব্যক্তিগত তথ্য ঝুঁকির মুখে ফেলছেন।