তিমির চক্রবর্ত্তী: বাংলাদেশ তথা দক্ষিণ এশিয়ার আলোর দিশারী, মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির কাণ্ডারী একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার প্রমান তিনি ইতিমধ্যই দিয়েছেন দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাস্তবায়িত করে। আর এখন বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাসের ঝুঁকি নিয়ে দেশ ও মানুষের কল্যাণে দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বলেন, শুধু কভিড-১৯ মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নে সরকার যেসব নির্দেশনা জারি করেছে, সেগুলো পর্যালোচনা করলে এবং পরিমাণ বিবেচনা করলেই কিছুটা অনুমান করা যায় জনগণের জীবন ও জীবিকা নিশ্চিত করতে ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কতটা পরিশ্রম করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নে সরকারের বিভিন্ন বিভাগ ও মন্ত্রণালয় যেসব নির্দেশনা জারি করেছে তার পরিমাণ ১ হাজার ৯৭৬ পৃষ্ঠা। ভবিষ্যতে করোনা মহামারির মতো দুর্যোগ মোকাবেলার কথা চিন্তা এসব নির্দেশনা সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। এসব নির্দেশনা বই আকারে পাঁচটি ভলিউমে সংরক্ষণ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়ার তত্ত্বাবধানে করোনা মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ থেকে জারি করা এসব প্রজ্ঞাপন সংকলন করা হয়।

আজ মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় এসব তথ্য জানানো হয়।
এভাবে দেশে যখনই কোন সংকট আসে তখনই প্রধানমন্ত্রী তাঁর সুদক্ষ নেতৃত্ব দিয়ে সমস্যা সমাধান করে থাকেন। এ যেন বিধাতার কোন দূত এসে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর মতো।