স্টার্ফ রিপোর্টার: পদ্মা সেতুর আজকের এই স্প্যান বসানোর ফলে বার মাত্র আটটি স্প্যান বসানো বাকী আছে। আজ (১৯ অক্টোবর) সোমবার ‘১সি’ নামের এই স্প্যান মাওয়া প্রান্তের ৩ ও ৪ নম্বর খুঁটির ওপর সফলভাবে স্থাপন করা হয়েছে। এতে পদ্মা সেতুর দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৯শ’ মিটার। আট দিনের ব্যবধানে এই স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের জানান, চলতি মাসে আরো দুইটি অর্থ্যাৎ ২৫ অক্টোবর ৩৪তম এবং ৩০ অক্টোবর ৩৫তম স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে। যে ৮টি স্প্যান রয়েছে তা চলতি বছরের মধ্যেই খুঁটিতে বসানোর টার্গেট নিয়েই কাজ চলছে। এখন স্প্যানও প্রস্তুত তাই খুঁটিতে বসিয়ে দেয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

তিনি বলেন, সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্প্যানটি নিয়ে রওনা দেয় প্রায় ৯ শ’ মিটার দূরের ৩ ও ৪ নম্বর খুঁটির কাছে। পরে দুপুর ১২টায় এটি খুটির ওপর বসানো হয়।

কাদের আরো বলেন, বসানো স্প্যানগুলোতেও স্লাব বসানোর কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। এ পর্যন্ত সেতুর উপরের তলায় রোডওয়ে স্লাব বসানো হয়ে গেছে ১০৭৬টি। আর রেলওয়ে স্লাব বসেছে ১৫৯০টি।

উল্লেখ্য, ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে সেতুটি দ্বিতল হবে, যার ওপরে থাকবে সড়কপথ ও নিচের অংশে থাকবে রেলপথ। সেতুর এক খুঁটি থেকে আরেক খুঁটির দূরত্ব প্রায় ১৫০ মিটার। একেকটি খুঁটি ৫০ হাজার টন লোড নিতে সক্ষম।

প্রধানমন্ত্রীর সুদৃঢ় মনোবল আর ইচ্ছার বহি:প্রকাশের ফলস্বরূপ বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। মূলসেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে চীনের ‘সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

এর আগে গত ১১ অক্টোবর স্থাপন করা স্প্যানটির পাশেই এটি বসানো হয়।